KOLKATA WEATHER
এক ঝলকেউত্তরবঙ্গজলপাইগুড়ি

কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্সদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগ দুই যুবক এর বিরুদ্ধে

জলপাইগুড়ি ঃ- কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্সদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেফতার করলো জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানার পুলিশ। রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটে জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। অভিযুক্ত দুই যুবকের নাম প্রলয় দাস ও বিশ্বজিৎ দাস। ধৃতদের বাড়ি শহর লাগোয়া মোহিত নগর এলাকাতে। সোমবার ধৃতদের জেলা ও দায়রা আদালতে তোলা হয়। আদালত ধৃতদের জামিন নাকচ করে দশ দিনের জন্য জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয়। যদিও ১০ সেপ্টেম্বর ফের জামিনের আবেদন করতে পারবে অভিযুক্ত পক্ষের আইনজীবী।

আরও পড়ুনতৎপরতার সঙ্গে লকডাউন পালন করল চন্দননগর পুলিশ

জানা গিয়েছে রবিবার রাতে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে এক রোগীকে নিয়ে এসেছেন কয়েকজন যুবক। ইঞ্জেকশন দেওয়া নিয়ে রোগীর পরিজনদের সঙ্গে কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্সদের বচসা বেধে যায় বলে অভিযোগ। ঘটনাকে কেন্দ্র করে রোগীর পরিজনের চিকিৎসক ও নার্সের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে বলে অভিযোগ। সকলের চিকিৎসক ও নার্সের উপর মারমুখি হয়ে উঠে। এরপর হাসপাতালের নিরাপত্তা রক্ষীরা এসে অভিযুক্ত দুই যুবককে আটকে রেখে পুলিশকে খবর দেয়। কোতোয়ালি থানার পুলিশ গিয়ে অভিযুক্তদের আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। এদিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেন। পুলিশ এরপর দুজনকে গ্রেফতার করে বলে দাবি। এদিন ধৃতদের আদালতে তোলা হলে ১০ দিন জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয় আদালত।
সদর হাসপাতাল সুপার গয়ারাম নষ্কর বলেন, ” আমাদের কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্সদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগে দুজনের নামে অভিযোগ করা হয়েছে।
এদিকে অভিযুক্ত পক্ষের আইনজীবী সাগ্নিক শঙ্কর শিকদার বলেন,” অভিযুক্তদের পক্ষে মিথ্যে অভিযোগ করা হয়েছে। দশ সেপ্টেম্বর ফের জামিনের আবেদন করা হবে।

মোবাইলে খবরের নোটিফিকেশন পেতে এখানে ক্লিক করুন - Whatsapp , Facebook Group

আমাদের খবর পাঠাতে এখানে ক্লিক করুন - Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close