KOLKATA WEATHER
এক ঝলকেদক্ষিণবঙ্গপূঃ মেদিনীপুর

৭ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ দাদার বিরুধে

প্রতিবেদনঃ মোবাইলে গেম খেলানোর প্রলোভন দেখিয়ে ৭ বছরের নাবালিকাকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল পাশের বাড়ির মামাতো দাদা বিরুধে। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কোলাঘাট থানার সাগরবাড় অঞ্চলের চাঁদপুর গ্রামে। এই ঘটনায় শিঁউরে উঠলো স্থানীয় এলাকাবাসীরা।

আরও পড়ুননবম শ্রেনীর ছাত্রীকে গণধর্ষনের অভিযোগ দুই যুবকের বিরুদ্ধে

কোলাঘাট থানার চাঁদপুর গ্রামের বাসিন্দা শেখ শাফরিদ বাদশা অভিযোগ করেন, গতকাল অর্থাৎ 2 সেপ্টেম্বর বিকেল ৪ টা নাগাদ বাড়িতে কেউ না থাকায় ৭ বছরের এক নাবালিকাকে তারই পাশের সারদাবসান গ্রামের সম্পর্কে পাশের বাড়ি বছর ১৮ র সম্পর্কে মামাতো দাদার বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত সেক রাকেশ গতকাল মোবাইলের গেম খেলানোর প্রলোভন দেখিয়ে পাশের বাড়ির অর্থাৎ অভিযুক্তর নিজের মামাবাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। নাবালিকার মা পুতুল বিবি অভিযোগ যে বাড়িতে তখন কেউ ছিলনা আমি তখন ঘুমাচ্ছিলাম। সেই সময় আমার মেয়েকে ডেকে নিয়ে গিয়ে মোবাইলে গেম খেলানোর প্রলভোন দেখিয়ে ধর্ষণ করে। কিন্তু ঘটনার পর ভয়ে কিছু বলতে পারেনি তার ছোট্ট মেয়ে । এরপর সন্দেহ হতে বারবার জিজ্ঞেস করার পরও কিছু উত্তর আসেনি। পরে রাতে মেয়েকে যখন জিজ্ঞেস করা হয় মেয়ে তখন কেঁদে ফেলে। তারপর পুরো ঘটনা খুলে বলে। ওই নাবালিকাকে ভয় দেখায় ওই যুবক সেক রাকেশ। যদি এই ঘটনা ঘরে বলে, তাহলে মেরে পুকুরে ভাসিয়ে দেবে বলেও হুমকি দেয় ,সেই ভয়েই কিছু বলে না আমাদের। সকালে মেয়ে আরও অসুস্থ হয়ে পড়ে। অভিযুক্ত ছেলের বাড়ি যেতে তারা আপস-মীমাংসার চেষ্টা করে। কিন্তু আমরা থানায় বিষয়টি জানাই। অভিযুক্ত ছেলেকে বাড়ির মধ্যে আটকে রাখা হয় ।তারপর কোলাঘাট থানার পুলিশ এসে ওই ছেলেকে আটক করে নিয়ে যায় । অভিযুক্ত ছেলের মা-বাবার বলেন যে আমার ছেলে যদি অপরাধী হয় তাহলে কঠোর থেকে কঠোরতম শাস্তি হোক। 7 বছরের শিশু ধর্ষণ ঘটনা নিন্দার ঝড় উঠেছে গোটা এলাকায়। স্থানীয় পঞ্চায়েত ময়না খাতুন জানান যে আমি এখনও পর্যন্ত এই ঘটনা অবগত নয় যদি এই ঘটনা ঘটে তাহলে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক অভিযুক্তের।

মোবাইলে খবরের নোটিফিকেশন পেতে এখানে ক্লিক করুন - Whatsapp , Facebook Group

আমাদের খবর পাঠাতে এখানে ক্লিক করুন - Whatsapp
Tags
Close
Close