KOLKATA WEATHER
এক ঝলকে

কর্ণাটক পুলিশের জালে বড়োসড়ো গাজা চক্র

নিউজ ডেস্ক : কর্ণাটক পুলিশ দিন পনেরো আগে একটি গাঁজা চাষ ও পাচার চক্রের খোঁজ পায়। গাজা চক্রের খোঁজ মেলে চিত্রদুর্গ জেলার রামপুরায়। সেখান থেকে আনুমানিক ৪,২২ কোটি টাকার প্রায় সাড়ে ৯ হাজার কেজি গাঁজা বাজেয়াপ্ত করে পুলিশ। তিন দিন আগে এই মামলায় তিনজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। কিন্তু প্রধান সন্দেহভাজন রুদ্রেশকে এখনও সনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। পুলিশ সূত্রের খবর, চিত্রদুর্গে গ্রেফতার হওয়া তিন ভাইয়ের কাছ থেকে ভাড়া নেওয়া জমিতে গাঁজার গাছের চাষ করছিল রুদ্রেশ। গাঁজা চাষের প্রধান পান্ডা সেই রুদ্রেশ এখনো পর্যন্ত অধরা।

আরও পড়ুনফেসবুকে ভুঁয়ো প্রোফাইল বাংলার পুলিশের, তদন্তে উঠে এল ইউপি, বিহার, ঝাড়খন্ড লিংক

পুলিশের বক্তব্য অনুযায়ী, ৪ সেপ্টেম্বর অভিনেতা রাগিনী দ্বিবেদির গ্রেফতারের পরে রামপুরা পুলিশ স্থানীয়দের একজনের কাছ থেকে একটি ফোনকল পেয়েছিল| সেই ফোন কলে অপর প্রান্তে থাকা ব্যক্তি জানান যে মোলাকালমুরু তালুকায় অবস্থিত ভাদরহল্লিতে গাঁজার গাছের চাষ হচ্ছে। খবরটা সত্য কিনা তা পরীক্ষা করতে গুন্ডাপ্পা নামে একজন কনস্টেবলকে পাঠানো হয়েছিল। গুন্ডাপ্পা ভাদেরহল্লিতে গেলে স্থানীয়রা তাকে কাছের একটি চার একর জমির কাছে নিয়ে যায় এবং পুলিশ দেখতে পায় যে পুরো প্লটে চার ফুট বৃদ্ধি হওয়া গাঁজা গাছ ছিল ।

চিত্রদুর্গর পুলিশ সুপার জি রাধিকাকে ঘটনাস্থলে ডেকে আনা হয় এবং পুলিশ প্রমাণ হিসাবে এই গাছ গুলো কেটে ট্রাকে উঠিয়ে দেয়। স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ করে রামপুরা পুলিশ জানতে পারে এই প্লটটি তিন ভাইয়ের, যারা রামপুরার বাসিন্দা। এই প্লটটি ডিবি মঞ্জুনাথের, থাইমাপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ওয়াই মঞ্জুনাথ এবং কনিষ্ঠ ভাই ডিওয়াই মঞ্জুনাথের, পুলিশ জানিয়েছে, তারা তখনই তিনজনকে গ্রেফতার করে। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। খুব শীঘ্রই গাজা চক্রের প্রধান মাথা রুদ্রেশ পুলিশের জালে ধরা পড়বে বলে আশাবাদী কর্ণাটক পুলিশ।

 

মোবাইলে খবরের নোটিফিকেশন পেতে এখানে ক্লিক করুন - Whatsapp , Facebook Group

আমাদের খবর পাঠাতে এখানে ক্লিক করুন - Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close