KOLKATA WEATHER
এক ঝলকেদঃ ২৪ পরগনাদক্ষিণবঙ্গ

তদন্তে শ্রেষ্ঠত্বের জন্য কেন্দ্রের পুরস্কার পেলেন বারুইপুরের পুলিশ

নিজস্ব প্রতিনিধি,বারুইপুর: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুর পুলিশ জেলার কাশীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত সহ আধিকারিক প্রদীপ পালকে তদন্তে শ্রেষ্ঠত্বের জন্য ভারত সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পুরস্কার, ২০২০-তে সম্মানিত করা হয়। তাঁর এই সম্মান প্রাপ্তি দুটি মামলার সফল তদন্তের জন্য। একটি হত্যা ও জালিয়াতির ঘটনা এবং অপরটি অপহরণ ও মৃত্যুর ঘটনা বলে জানা গিয়েছে। দুটি ঘটনাই ২০১৬ সালে বারুইপুর পুলিশের অধীনস্থে তদন্ত হয়।

প্রথম ঘটনা, ২০১৬ সালের ৭ জুলাই ভাঙর থানা এলাকার এক বাসিন্দাকে ওই এলাকারই চার ব্যক্তি ধারালো অস্ত্র দিয়ে আক্রমণ করে। যাঁর সঙ্গে তার দীর্ঘদিনের বিরোধ ছিল। আক্রমণের পর গুরুতরভাবে আহত হন সেই ব্যক্তি এবং পরে মারা যান। মৃতের ছেলে সেই চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। সেই তদন্তের অফিসার (আইও) হিসাবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল সহ আধিকারিক প্রদীপ পালকে।
তার দ্রুত তদন্তের পরে ২০১৯-এর ২৫ সেপ্টেম্বর বারুইপুর ফাস্ট ট্র্যাক কোর্ট সাজা ঘোষণা করে। ১ জনের মৃত্যুদণ্ড এবং ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারা অনুসারে, বাকি ৩ জনের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত সশ্রম কারাদণ্ড হয়। জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাস সাধারণ কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

আরও পড়ুনসারদা,নারদা ও রোজভ্যালিকাণ্ডে নয়া মোড়

দ্বিতীয় ঘটনা, ২০১৬ সালের ১ মে ভাঙর থানা এলাকার এক নাবালক বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় কাউকে না জানিয়ে৷ ২-রা মে ছেলেটিকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়৷ পরে কিছু গোপন তথ্যের ভিত্তিতে এক সন্দেহভাজনকে আটক করে পুলিশ৷ পরে হত্যাকারী স্বীকার করে যে, ১ মে ছেলেটির হাত বেঁধে, খালে ফেলে দিয়ে তাকে হত্যা করেছিল সে। সেই অনুযায়ী অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়। আইও হিসাবে সেই তদন্তেরও দায়িত্ব নিয়েছিলেন সহ আধিকারিক প্রদীপ পাল। তারই দ্রুত তদন্তের ভিত্তিতে, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮-তে বারুইপুর আদালতের এডিজি দোষীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারা অনুসারে ২০ হাজার টাকার জরিমানা, নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সশ্রম কারাদণ্ড ধার্য করেন। জরিমানা অনাদায়ে এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। সঙ্গে ভারতীয় দণ্ডবিধির ২০১ এবং ৪১১ ধারা অনুসারে তিন বছরের কারাদণ্ড এবং ৫,০০০ টাকার জরিমানা ও ২ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

তৎপরতার সাথে সবদিক খুঁটিয়ে দেখে, দুটি তদন্তই সুচারুভাবে শেষ করে সাফল্য পেয়েছিলেন সহআধিকারিক প্রদীপ পাল। ভারত সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক এই দুটি তদন্তে দক্ষতার জন্যই তাঁকে স্বীকৃতি জানিয়ে তাকে সম্মানিত করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পুরস্কার, ২০২০-তে । ইতিমধ্যেই অবশ্য পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের তরফে সহ আধিকারিক প্রদীপ পালকে অভিনন্দন জানানো হয়েছে।

 

মোবাইলে খবরের নোটিফিকেশন পেতে এখানে ক্লিক করুন - Whatsapp , Facebook Group

আমাদের খবর পাঠাতে এখানে ক্লিক করুন - Whatsapp
Close
Close