KOLKATA WEATHER
এক ঝলকেদক্ষিণবঙ্গহাওড়া

পুলিশের হার না মানা লড়াইয়ের সত্যি গল্প

নিজস্ব সংবাদদাতা, হাওড়া: কোভিড ওয়ারিয়র হিসেবে যারা কাজ করছেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন পুলিশ। আর এই কাজ করতে গিয়ে করোনা সংক্রমিত হচ্ছেন বহু পুলিশকর্মী। তবুও মনোবল হারাননি তাঁরা। সুরক্ষা দিতে গিয়ে আবার জনতার হাতে আক্রান্তও হচ্ছেন বহু পুলিশকর্মী। লকডাউন চলাকালীন যাতে সংক্রমন না ছড়ায় তার জন্য পথে নামতেও পিছপা হননি কোনও পুলিশ। এরজন্য জনতার হাতে মার খেতে হয়েছে তাঁদের। সম্প্রতি টিকিয়াপাড়ায় মারধর করা হয়েছিল পুলিশদের। ভাঙ্গা হয়েছিল জিপ। বারবার বিভিন্ন বাধার মধ্যে পড়েও মনোবল হারায়নি কোনও পুলিশকর্মী। জমায়েত হটাতে ভিড়ের মধ্যে যেতে হয়েছে তাঁদের। ফলে সহজেই সংক্রমিত হয়েছেন পুলিশ কর্মীরা। কঠিন এই পরিস্থিতির মধ্যে অসহায় মানুষদের খাবার ও নিত্য প্রয়োজনীয় খাবার পৌঁছে দিয়েছেন পুলিশই। শুধু করোনা পরিস্থিতি সামলানো নয় উম্পুন বিপর্যয়ের মোকাবিলায় পুলিশের ভূমিকা অনস্বীকার্য ছিল। এর পাশাপাশি বিভিন্ন অপরাধ দমন করে যাচ্ছেন পুলিশ। সাধারণ মানুষকে পরিষেবা দিতে ঘরে বসে থাকার কোনো উপায় নেই তাঁদের। সুরক্ষা দিতে গিয়ে সংক্রমিত হয়েছে হাওড়া কমিশনারেট এলাকার কমপক্ষে একশ জন পুলিশকর্মীকে। সাঁতরাগাছি,শিবপুর,জগৎবলবপুর, দাসনগর, বেলুড় থানার পুলিশকর্মীরা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।পুলিশ লাইন ও পুলিশ অফিসের কর্মীরাও আক্রান্ত। সুস্থ হয়ে ফিরে এসেছেন প্রায় আশি জন পুলিশ আধিকারিক। এবার ফের আক্রান্ত ডোমজুর ও ব্যান্টরা থানার পুলিশ। দুটি থানায় আক্রান্ত মোট বাইশ জন। তাঁদের চিকিৎসা চলছে। থানায় হাতেগোনা ক’জন পুলিশ দিয়েই চলছে পরিষেবা। তবুও মনোবল ভাঙেনি পুলিশের। তাঁরা লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। কারন লকডাউনের শুরুতেই মানুষকে সাহস জোগাতে পুলিশের মুখেই শোনা গিয়েছিল উই শ্যাল ওভার কাম।

মোবাইলে খবরের নোটিফিকেশন পেতে এখানে ক্লিক করুন - Whatsapp , Facebook Group

আমাদের খবর পাঠাতে এখানে ক্লিক করুন - Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close